এলাকার পরিবেশ দূষণ রোধে ফুটবলের হাত ধরে সফল পশ্চিমবঙ্গ সরকারের এক আধিকারিক দম্পতি

বিবিপি নিউজ,রাজকুমার দাস: পরিবেশ দূষণ দূরীকরণের লক্ষ্যে ফুটবলের দ্বারস্থ হয়ে গত সাড়ে তিন বছরে অনেকটাই সফল হয়েছেন পশ্চিমবঙ্গ সরকারের অর্থ বিভাগের দুই যুগ্ম আয়োগ অনুপম হালদার ও পাঞ্চালী মুন্সী।
পারিবারিক কারণে এই মুহুর্তে দক্ষিণ দমদম পৌরসভার ২ নম্বর ওয়ার্ডের লক্ষ্মীনারায়ণ রোডের বাসিন্দা অনুপম হালদার।

লক্ষ্মীনারায়ণ রোডের বাসিন্দা হওয়ার সুবাদে দুই আধিকারিক লক্ষ্য করেছিলেন এলাকার একটা প্লট বছরভর ময়লা থাকার পরিপ্রেক্ষিতে দৃশ্যদূষণের পাশাপাশি এলাকায় পরিবেশ দূষণও ঘটাচ্ছে, আর এরই হাত ধরে এলাকায় ছড়াচ্ছে বিভিন্ন ধরণের মশকবাহিত রোগ।

আধুনিক জগতের শিক্ষিত দম্পতি হওয়ার সুবাদে অনুপম হালদার ও পাঞ্চালী মুন্সী এলাকার নাগরিকদের সহায়তায় ওই জমির পাহাড় পরিমাণ ময়লা সরিয়ে স্থানীয় অঞ্চলে ফুটবল খেলার প্রচার ও প্রসারের লক্ষ্যে নিখরচায় ফুটবল প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করেন।

তারই ফলশ্রুতিতে আজ হয়ে গেল ‘স্বর্গীয় সুরেন্দ্রনাথ হালদার ও স্বর্গীয় সুষমারাণী হালদার স্মৃতি কাপ চ্যাম্পিয়ন ট্রফি’।
বলে রাখা ভালো এই খেলার বিজেতা (রানার্স) দল পাবেন ‘স্বর্গীয় অসীমকুমার মুন্সী ও স্বর্গীয় স্বপ্না মুন্সী স্মৃতি কাপ রানার্স ট্রফি’।

আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন ও প্রমোশন-এর জন্য যোগাযোগ করুন 7003345558

আজ এলাকায় ঢোকার সময় এক নাগরিক বলছিলেন, “অনুপমদের কারণে এলাকায় একদিকে যেমন দূষণ কমেছে অপরদিকে স্থানীয় কচিকাঁচাদের মধ্যে ফুটবল খেলার আগ্রহ বেড়ে গেছে।”

ফুটবল প্রতিযোগিতার আয়োজক রূপে আধিকারিক দম্পতি অনুপম হালদার ও পাঞ্চালী মুন্সী একযোগে জানিয়েছেন, “আজ ৮ টা দলকে নিয়ে প্রতিযোগিতা চলছে, প্রত্যেক দলে ৪ জন অংশগ্রহণ করেছে। এক এক অর্ধে খেলোয়াড়রা সময় পাচ্ছে ৭ মিনিট।”

ফুটবল প্রতিযোগিতা চলাকালীন এলাকার শিশু ও কিশোর কিশোরীদের হাতে নৈশকালীন আহারও তুলে দিয়েছেন পিতৃমাতৃহীন আধিকারিক দম্পতি।